ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২০ সফর ১৪৪৩

গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে স্পেনে আলোচনা সভা



গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে স্পেনে আলোচনা সভা

 ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার শহীদদের স্মরণে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে স্পেনে। মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) সন্ধ্যায় ভার্চুয়াল মাধ্যমে এ আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

স্পেন আওয়ামী লীগের সভাপতি এএসআইএস রবিনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মো. রিজভী আলমের পরিচালনায় সভায় ভার্চুয়ালি প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন৷

 

এ সময় তিনি বলেন, পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট ও ২০০৪ সালের ২১ আগস্টের হামলাকারীরা এক ও অভিন্ন শক্তি। তাদের মূল লক্ষ্য বাংলাদেশকে পাকিস্তানের ধারায় ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া। এদের মূল লক্ষ্য দেশের স্বাধীনতা হত্যা, গণতন্ত্র হত্যা করা। ১৬ বছর অতিবাহিত হলেও ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার ভয়াবহ স্মৃতি জাতি আজও ভুলতে পারেনি। ভয়াল সেই হামলায় আওয়ামী লীগের ২৪ নেতাকর্মী নিহত হন, আহত হন পাঁচ শতাধিকেরও বেশি লোকজন। আহতদের অনেকেই এখনো তাদের শরীরে গ্রেনেডের স্প্লিন্টার আর দুঃসহ স্মৃতি বয়ে বেড়াচ্ছেন।

এসএম কামাল হোসেন আরও বলেন, সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশে ভয়াবহ গ্রেনেড হামলা চালিয়ে সেদিন বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টাসহ আওয়ামী লীগকে নিশ্চিহ্ন করতে চেয়েছিল। এই হামলার পেছনে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক জিয়ার প্রত্যক্ষ মদদ রয়েছে। তার হাওয়া ভবন থেকেই এই হামলার পরিকল্পনা করা হয়। সৌভাগ্যবশত, সেদিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বেঁচে যান। আমরা ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার সঙ্গে জড়িত সব খুনিদের অবিলম্বে ফাঁসি কার্যকর করার দাবি করছি।

অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি বিশেষ অতিথি ছিলেন সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি এম নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান, ফিনল্যান্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল ইসলাম প্রমুখ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি এম নজরুল ইসলাম বলেন, ১৫ আগস্ট ও ২১ আগস্ট একই সূত্রে গাঁথা। মৌলবাদী অশুভ শক্তি সবসময় আমাদের উন্নয়নকে পেছনে ফেলতে চেয়েছে। কিন্তু অশুভ শক্তির সব অপতৎপরতা সত্ত্বেও বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে চলেছে।

 

 

পরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৫ আগস্ট ও ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।


   আরও সংবাদ