ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২০ সফর ১৪৪৩

বিনোদনের খোঁজে  গাজীপুরের  বঙ্গবন্ধু সাফারি  পার্ক



বিনোদনের খোঁজে  গাজীপুরের  বঙ্গবন্ধু সাফারি  পার্ক

অসীম বেনেডিক্ট পামার:গাজীপুর জেলার শ্রীপুর ও সদর উপজেলার বড় রাথুরা এবং পীরুজালী মৌজার খন্ড খন্ড শাল বনের ৪৯০৯.০ একর বন ভূমির সমন্বয়ে বিভিন্ন প্রজাতির প্রাণির জন্য নিরাপদ আবাসস্থল হিসাবে সবার কাছে বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক পরিচিত। দেশী-বিদেশী বিশেষজ্ঞদের সহায়তায় আন্তর্জাতিক মানের সাফারী পার্কে উন্নীত করা হয়েছে। 

সাফারী পার্কটি দক্ষিণ এশীয় মডেল বিশেষ করে থাইল্যান্ডের সাফারী ওয়ার্ল্ড এবং  ইন্দোনেশিয়ার বালি সাফারী পার্কের সাথে সামঞ্জস্য রেখে স্থাপন করা হয়েছে। সাফারী পার্কের চারদিকে নির্মাণ করা হচ্ছে স্থায়ী ঘেরা এবং উহার মধ্যে দেশী/বিদেশী বন্যপ্রাণীর বংশবৃদ্ধি ও অবাধ বিচরণের সুযোগ সৃষ্টি করা হয়েছে।   পর্যটকগণ এই সাফারি পার্কে চলমান যানবাহনে অথবা পায়ে হেঁটে ভ্রমণ করে শিক্ষা, গবেষণা ও চিত্তবিনোদনের সুযোগ লাভ করবেন। 

সাফারী পার্কের ধারনা চিড়িয়াখানা হতে ভিন্নতর। চিড়িয়াখানায় জীবজন্তুসমূহ আবদ্ধ অবস্থায় থাকে এবং দর্শনার্থীগণ মুক্ত অবস্থায় থেকে জীবজন্তু পরিদর্শন করেন। পক্ষন্তরে, সাফারী পার্কে বন্যপ্রাণীসমূহ উন্মুক্ত অবস্থায় বনজঙ্গলে বিচরণ করে বলে পর্যটকগণ সতর্কতার সহিত চলমান যানবাহনে নির্দেশনা মোতাবেক স্বীয় অবস্থানে অবস্থান করবেন।


   আরও সংবাদ