ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২০ সফর ১৪৪৩

ফাইভ–জি সেবা দিতে হাজার কোটি টাকা পাচ্ছে টেলিটক



ফাইভ–জি সেবা দিতে  হাজার কোটি টাকা পাচ্ছে টেলিটক

ফাইভ–জি সেবা দিতে নেটওয়ার্ক আধুনিকায়নে রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান টেলিটককে ২ হাজার ১৪৪ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে সরকার। আজ মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির সভায় (একনেক) এ–সংক্রান্ত একটি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে মোট খরচ হবে ২ হাজার ২০৪ কোটি টাকা। এর মধ্যে সরকার দেবে ২ হাজার ১৪৪ কোটি টাকা। বাকি ৬০ কোটি টাকা টেলিটক নিজে বহন করবে।

আজ মঙ্গলবার একনেক সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

লোকসানি একটি প্রতিষ্ঠানকে কেন বারবার সরকার জনগণের করের টাকা দিচ্ছে, সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শামসুল আলম বলেন, ‘বাংলাদেশ একটি কল্যাণমুখী রাষ্ট্র। সেভাবেই আমাদের নীতি প্রণয়ন হয়। ব্যক্তি খাতকে আমরা সহায়তা দেব, সুযোগ করে দেব। কিন্তু সবকিছু আমরা ব্যক্তি খাতে ছেড়ে দেব না।’

পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘লোকসানি প্রতিষ্ঠান হওয়া সত্ত্বেও বিআরটিসি চালানো হচ্ছে। মানুষের কল্যাণেই এটি চালানো হচ্ছে। সব সময় লোকসানের বিষয়টি মাথায় রাখলে চলবে না। এমন এলাকা আছে, যেখানে টেলিটক ছাড়া অন্য কোনো নেটওয়ার্ক যায় না। তিনি বলেন, জনগণের কল্যাণের কথা চিন্তা করে লোকসানি প্রতিষ্ঠান আমাদের চালিয়ে নিতে হয়।’

আজকের একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে জামালপুরের মাদারগঞ্জে ১০০ মেগাওয়াট ক্ষমতার একটি সৌরবিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের প্রস্তাব তোলা হয়। তখন প্রধানমন্ত্রী এই প্রকল্প থেকে নিজের নাম কেটে দেওয়ার নির্দেশ দেন।
সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, বৈঠকে উপস্থিত সব সচিব প্রধানমন্ত্রীর নামেই সোলার পার্ক করার প্রস্তাব করেন। সবার বক্তব্য ছিল, এই সোলার পার্ক দেশের সবচেয়ে বড়। তা ছাড়া এটি আইকনিক প্রকল্প। সে জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে হওয়া উচিত।

তবে প্রধানমন্ত্রী সাফ জানিয়ে দেন, তাঁর নাম বাদ দিতে। পরে তিনি এর নাম দেন সোলার পার্ক, জামালপুর।

 


   আরও সংবাদ